Menu
Menu

আগৈলঝাড়ায় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ

Share on facebook
Share on google
Share on twitter

আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি।।
বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ১৪ বছরের কিশোরীকে ধর্ষনের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

স্থানীয় ও থানা সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল সদরের কোতয়ালী থানার শ্যামপাড়া বাজার রোড এলাকার মেয়ে ফাতেমা বেগম কাজের সুবাধে তার কিশোরী মেয়েকে নিয়ে আগৈলঝাড়া উপজেলার সুজনকাঠী গ্রামে ভাড়া বাসায় থাকেন। তার ১৪ বছরের কিশোরী মেয়ের সাথে উপজেলার পশ্চিম সুজনকাঠী গ্রামের আবুল কালাম মোল্লার ছেলে মুন্না মোল্লা(২২) এর পরিচয় হয়। পরিচয়ের কারনে তাদের সাথে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। পরে মুন্না ওই কিশোরীকে বিয়ে প্রলোভন দিয়ে বিভিন্ন সময় তার ঘরে নিয়ে ধর্ষন করে। সর্বশেষ ১৫ মার্চ রাতে ধর্ষণ করে মুন্না। এই কাজে তাকে সহযোগিতা করেন উপজেলার রাহুতপাড়া গ্রামের প্রমোদ রায়ের ছেলে অশোক রায় (৩০), পশ্চিম সুজনকাঠী গ্রামের দেলোয়ার হাওলাদারের ছেলে সোহেল হাওলাদার(৩০) ও সোহেল হাওলাদারে স্ত্রী সুরমি বেগম।

এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে মুন্না মোল্লাসহ চারজনকে আসামী করে গত ৭ই জুন আগৈলঝাড়া থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরে ধর্ষিতা কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ৮জুন বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের নেওয়া হয়েছে।

সর্বশেষ