Menu
Menu

কোহলিকে দেখলে কেন লজ্জা পেতেন তামিম?

Share on facebook
Share on google
Share on twitter

স্পোর্টস ডেস্ক।।

ক্রিকেটে ফিটনেসের ধারাটাই যেন বদলে দিয়েছেন বিরাট কোহলি। অন্য খেলার অ্যাথলেটদের ফিটনেস সচেতন থাকতেই হয়, কিন্তু ক্রিকেটে আগে ফিটনেসটা তেমন গুরুত্ব পেত না। অনেক স্থুলকায়, অলস ক্রিকেটারেরও সফল হওয়ার ইতিহাস আছে।

তবে আধুনিক ক্রিকেট অনেক বদলে গেছে। বিশেষ করে বিরাট কোহলি দেখিয়ে দিয়েছেন, ফিটনেসটা ধরে রাখতে পারলে কি করা সম্ভব!

কোহলিকে দেখে অনুপ্রাণিত পুরো ভারতীয় দল। শুধু তাদের কথা বলা কেন? বাংলাদেশ দলও এই বদলে যাওয়া ভারতকে দেখে অনেক কিছু শিখেছে, এমনটা জানালেন টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

সম্প্রতি ক্রিকেট ওয়েবসাইট ‘ক্রিকইনফো’তে ভারতীয় ধারাভাষ্যকার সঞ্জয় মাঞ্জরকারের সঙ্গে এক পডকাস্ট অনুষ্ঠানে কোহলি ও ভারতীয় দলের ভূয়সী প্রশংসা করলেন তামিম।

দেশসেরা এই ওপেনার ওই অনুষ্ঠানে বলেন, ‘ফিটনেসের ব্যাপারে ভারতীয় দলের যে পরিবর্তন, সেটা বাংলাদেশের ক্রিকেটকে অনেক প্রভাবিত করেছে। আমার এটা বলতে দ্বিধা নেই। মনে হয় এটা সবার জানা উচিত।’

তামিম অবশ্য এমনিতেও কোহলির ফিটনেসের বড় ভক্ত। কদিন আগে ভারতীয় দলপতির সঙ্গে নিজের ফেসবুক লাইভে ক্রিকেটে ফিটনেসের ধারা বদলে দেয়ার জন্য কোহলিকে দৃষ্টান্ত হিসেবে উপস্থাপন করেন বাঁহাতি এই ওপেনার।

এবার তামিম জানালেন, ২-৩ বছর আগে এই কোহলিকে দেখলে লজ্জাই লাগতো তার। কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে টাইগার ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘২-৩ বছর আগে কোহলিকে যখন জিম করতে, দৌড়াতে দেখতাম; সত্যি করে বললে নিজের খুব লজ্জা লাগতো। ভাবতাম সাফল্য পাওয়ার পরও আমার বয়সী একজন এভাবে ট্রেনিং করছে, অথচ আমি তার অর্ধেকও করছি না।’

তবে বাংলাদেশ দলেও ফিটনেসের একজন আইডল আছেন, জানালেন তামিম। এবং সেটা অবশ্যই মুশফিকুর রহীম। উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যানকে কিংবদন্তি আখ্যা দিয়ে তামিম বলেন, ‘আমাদের দলে একজনকে আমরা দেখে আমরা শিখি, সে হলো মুশফিকুর রহীম।’

সর্বশেষ