Menu
Menu

পাঁচ লক্ষণে বুঝে নিন শিশু পানিশূন্যতায় ভুগছে

Share on facebook
Share on google
Share on twitter

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা।।
বড়দেরই শুধু পানিশূন্যতা দেখ দেয়, এই ধারণাটি একদম ভুল। বড়দের মতো শিশুদেরও পানিশূন্যতা হয়। জন্মের পর প্রথম ছয় মাস শিশুর পানি শূন্যতা দেখা নাও দিতে পারে। কারণ এই সময় শিশু মায়ের বুকের দুধের ওপর নির্ভরশীল থাকে।

তবে এরপর ধীরে ধীরে শিশুদের বাইরের খাবার দেয়া শুরু হয়। আর তখনই দেখা দিতে পারে শিশুর পানিশূন্যতা। শিশুদের পেটের সমস্যা হলো পানিশূন্যতার অন্যতম কারণ। অনেকে মা-বাবাই আছেন, যারা বুঝতেই পারেন না যে তার সন্তান পানিশূন্যতায় ভুগছে। তবে শিশুর পানিশূন্যতা বোঝার কিছু উপায় রয়েছে। সতর্কতা বাড়াতে দেরি না করে চলুন জেনে নেয়া যাক সেই লক্ষণগুলো-

শুষ্ক ত্বক ও মুখ: শিশুর পানিশূন্যতার একটি বড় লক্ষণ হলো মুখ ও ত্বকের শুষ্কতা। পানিশূন্যতা হলে তার ত্বক মলিন হয়ে যায়। এছাড়া পানিশূন্যতা হলে হাত-পা গরম অথবা ঠাণ্ডা হয়ে যেতে পারে। এ ধরনের লক্ষণ দেখা দিলে একদম অবহেলা নয়। এমন হলে শিশুকে দুধ খাওয়ান। আর ছয় মাসের ওপরে বয়স হলে তরল জাতীয় খাবার খেতে দিন।

কান্নার সময় চোখে পানি না থাকা: সাধারণত শিশুদের কান্নার সময় চোখ দিয়ে পানি বের হয়। পানি না বের হলে বুঝতে হবে শরীরে পানি অভাব হচ্ছে এবং কান্নার জন্য পর্যাপ্ত পানি পাওয়া যাচ্ছে না। তাই এই অবস্থায় শিশুকে বেশি বেশি তরল খাবার দিন।

বেশি ঘুমাচ্ছে: বড়দের মতো শিশুরাও পর্যাপ্ত পুষ্টি না পেলে ক্লান্তবোধ করে। বেশি বেশি ঘুমাতে চায়। তাই শিশুর ঘুমানোর রুটির চেক করুন। যদি এর ব্যত্যয় ঘটে, তাহলে বিষয়টি নিয়ে সচেতন হোন।

বিরক্তি: শিশুর ক্ষুধা লাগলে বা পানিশূন্যতা বোধ করলে সে বিরক্তি প্রকাশ করে। তাই শিশু খিটখিটে হয়ে গেলে বিষয়টি এড়িয়ে না গিয়ে কারণ খোঁজার চেষ্টা করুন। হতে পারে পানিশূন্যতার কারণে সে এমন আচরণ করছে।

সূত্র-টাইমস অব ইন্ডিয়া।

সর্বশেষ