Menu
Menu

ভান্ডারিয়া পৌরবাসী স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না, ৭ জনকে জরিমানা

Share on facebook
Share on google
Share on twitter

ভান্ডারিয়া প্রতিনিধি।।
করোনা ভাইরাসের মহা কবলে পড়া পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া পৌরবাসী ও উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষ এখনো স্বাস্থ্যবিধি মানছে না।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলা পৌর শহরসহ বিভিন্ন হাট বাজারে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে সামাজিক দুরত্বতা উপেক্ষা করে, মাক্স ছাড়াই যত্রতত্র চলাফেরা করছে মানুষ। মনে হচ্ছে এখানে কোন করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি বা ঝুঁকি নেই। এ ছাড়াও কোন প্রকার আতংক ছাড়াই উপজেলার সর্বত্র জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেলুনগুলোতে একই ব্যক্তি শত শত পরিচিত-অপরিচিত লোকদের চুল-দাড়ি ও সেভ করে যাচ্ছে। নেই কোন সুরক্ষার বালাই।

অপরদিকে উপজেলা ঝুড়ে চায়ের দোকানে একই কাপ ও গ্লাসে দুমছে চা পান করছে স্থানীয় বাসিন্দারা। তবে, হাতে গোনা কয়েক দোকানিকে শুধু অনটাইম গ্লাসে চা বিক্রি করতে দেখা গেছে। ধারণা করা হচ্ছে- এভাবে আরো কিছুদিন চলতে থাকলে ভয়ালো করোনা ভাইরাস যেকোন সময় আরো মহামারীতে পরিনত হতে পারে।

এদিকে, রবিবার (৭ জুন) দুপুরে করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে পৌর শহরের বাজারে যাতায়াতের সময় মাস্ক ব্যবহার না করায় এবং স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করার অপরাধে ৭ জনের কাছ থেকে ২ হাজার ৯ শত টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ তৌহিদুল ইসলাম এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এইচএম জহিরুল ইসলাম ও ভান্ডারিয়া থানা পুলিশের একটি দল।

এ ব্যপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এইচএম জহিরুল ইসলাম বলেন, ইতিমধ্যে এখানে ১৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। নিজ দ্বায়িত্বে সবাই মিলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে পরিস্থিতি আরো ভয়ানক হয়ে উঠবে।

সর্বশেষ