বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন
২ বৈশাখ, ১৪২৮

সংবাদ শিরোনাম:
মুলাদীর দুলাল হাওলাদারের চুরি হওয়া ষাড় গরু কাজীরহাটে জবাই নরসিংদীতে ঢিলেঢালা লকডাউন দ্বিতীয় লকডাউন কঠোর অবস্থানে দশমিনা প্রশাসান হতাশা নিয়ে বাড়ি ফিরলেন মেনাজ মুন্সি মিসরে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত-২০ স্কুল চলাকালীন শ্রেণিকক্ষে পুড়ে মরল ২০ শিশু আগৈলঝাড়ায় স্বাস্থ্যবিধি মানতে মোবাইল কোর্টে অভিযান ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা বউ সাজলেন দীঘি,তবে… বরিশালে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা মাদরাসাছাত্রীকে আবারও ধর্ষণ! বরিশাল নগরী জনশূন্য নিখোঁজের ১৬ বছর পর লাশ হয়ে মায়ের কোলে ফিরলেন ইমন প্রেমিকাকে নিয়ে পালানোর অপরাধে যুবককে মূত্রপানে বাধ্য করোনা নেগেটিভ হওয়ার যতদিন পর টিকা নেওয়া যাবে নোয়াখালী বেগমগঞ্জে চেকপোষ্টে এলজি-কার্তুজসহ ২ যুবক আটক কোহলিকে সরিয়ে ওয়ানডের সেরা এখন পাকিস্তান অধিনায়ক ভারতে বাতিল মাধ্যমিক পরীক্ষা, স্থগিত উচ্চ মাধ্যমিক সাবেক আইনমন্ত্রী মতিন খসরু আর নেই দেশবাসীর প্রতি ইবাদত-বন্দেগির আহ্বান রাষ্ট্রপতির নৈশপ্রহরী থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ভান্ডারিয়া হাসপাতালে পৌঁছাল পাঁচ অক্সিজেন কনসেনট্রেটর
Dr. Ali Hasan
Dr. Jahidul Islam

হার্নিয়া হলে কি করবেন

রূপালী স্বাস্থ্য।।
হার্নিয়া খুবই কমন একটি রোগ। জন্ম থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়স পর্যন্ত যে কোন বয়সেই এই রোগ হতে পারে। পেটের মধ্যস্থ খাদ্যনালী বা অন্য যে কোনো অঙ্গ পেটের দুর্বল স্থান দিয়ে বাহিরে চলে আসাকে হার্নিয়া বুঝায়।

হারনিয়া কেন হয়-

আসলে পেট বা এবডোমেন ওয়ালের দুর্বলতাই হারনিয়ার একমাত্র কারণ। এই দুর্বলতা বিভিন্ন কারণে হতে পারে, যেমন-
১. জন্মগত
২. অপারেশন, আঘাত এবং ইনফেকশন ইত্যাদি।

উপসর্গ: প্রাথমিক পর্যায়ে রোগীরা বলবে হাঁটা-চলা করলে, ভারী কিছু উঠালে কিংবা হাচি-কাঁশি দিলে আমার কুচকীর উপরটা গোলাকার বলের মত ফুলে উঠে এবং শুয়ে থাকলে এটা চলে যায়। মাঝে মাঝে শক্ত হয়ে যায় এবং ব্যথা হয়। কিছুদিন এভাবে চলার পর গোলাকার ফোলাটি ইসক্রুটামে (অণ্ডকোষ থলিতে) নেমে আসে এবং শুয়ে থাকলে আপনা আপনি পেটের ভিতর শব্দ করে চলে যায়। এভাবে ফোলাটি বড় হতে থাকে এবং মাঝে মাঝে চাপ দিয়ে ভিতরে ঢোকাতে হয়। তারপর ধীরে ধীরে এমন একটি পর্যায়ে পৌঁছুতে পারে যে এটি আর চাপ দিলে পেটের ভিতর ঢুকছে না। এই পর্যায়ে প্রচণ্ডব্যথা, বমি এবং পেট ফাঁপা ও পায়খানা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এই অবস্থাকে অবস্ট্রাকটেড/স্ট্রাংগুলেটেড হার্নিয়া বলা হয়। এই অবস্থায় জরুরীভাবে অপারেশন না করলে জীবনমরণ সমস্যা হতে পারে।

চিকিৎসা: কুচকির মাঝামাঝি ১/২ ইঞ্চি উপরে হার্নিয়ার প্রাথমিক অবস্থান। অপারেশনই হচ্ছে এই রোগের একমাত্র চিকিৎসা। ছোট এবং প্রাথমিক পর্যায়ে অপারেশন করানোই উত্তম। কারণ এতে খরচ কম। মেস লাগানো ছাড়া করা যায় এবং জীবনের ঝুঁকি কম।

অপারেশন না করলে যেসব অসুবিধা হতে পারে-
১. ধীরে ধীরে হার্নিয়ার আকার বড় হবে
২. চিকিৎসা করা কঠিন ও ব্যয়সাধ্য হবে
৩. বড় হার্নিয়ার ক্ষেত্রে মেস লাগানোর প্রয়োজন হবে
৪. অবস্ট্রাকটেড হার্নিয়া হলে ইমারজেন্সী অপারেশন লাগবে এবং মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়বে। অভিজ্ঞ সার্জন দ্বারা অপারেশন করিয়ে নিলে আবার হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। তাই হারনিয়া হলে জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করে অপারেশন করিয়ে নিন।

ডা: কে.এম. জাহিদুল ইসলাম
এমবিবিএস(ঢাকা), বিসিএস (স্বাস্থ্য)
এমএস (অর্থোপেডিক সার্জারী) অর্থোপেডিক বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (পিজি হাসপাতাল) ঢাকা।

দ্রুত নিউজ পেতে নিচের লাইক বাটনে ক্লিক করে সি ফাস্ট করে রাখুন
নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

royal city hospital



© All rights reserved © 2019 rupalibarta.com
Developed By Next Barisal